মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:০৬ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশের বাঘ চলে যাচ্ছে ভারতে

প্রতিনিধির / ৮ বার
আপডেট : শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
বাংলাদেশের বাঘ চলে যাচ্ছে ভারতে
বাংলাদেশের বাঘ চলে যাচ্ছে ভারতে

সুন্দরবন থেকে বাংলাদেশের বাঘ চলে যাচ্ছে ভারতে। এর ফলে ভারতীয় অংশে বাঘ বেড়ে যাচ্ছে বলে দাবি করছেন পশ্চিমবঙ্গের বনমন্ত্রী৷মন্ত্রীর কথা অনুযায়ী সত্যিই কি রয়েল বেঙ্গল টাইগার ‘দেশান্তরী’ হচ্ছে?বাংলাদেশ ও ভারতের সুন্দরবনে রয়েল বেঙ্গল টাইগারকে রক্ষা করতে অনেক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের অংশে বাঘের সংখ্যা কমে যাওয়ায় উদ্বেগে ছিলেন প্রকৃতিপ্রেমীরা ৷

বাঘ বাঁচাতে বেসরকারি উদ্যোগে সুন্দরবনে ‘সেভ টাইগার, সেভ বেঙ্গল’ শীর্ষক সচেতনতামূলক প্রচার শুরু হয়েছে৷এমন সময় পশ্চিমবঙ্গের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বলেন, বাংলাদেশ থেকে বাঘ আসায় সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে বাঘ বেড়েছে।সরকারি হিসাব অনুযায়ী, গত বছরের ডিসেম্বরে শুমারিতে সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে রয়েল বেঙ্গল টাইগার ছিল ৯৬টি৷চলতি বছরের শুমারির চূড়ান্ত ফলাফল যদিও এখনো আসেনি তবে পশ্চিমবঙ্গের বনমন্ত্রী বলছেন, সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বেড়েছে৷

বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন ‘‘গত বছরের শুমারি অনুযায়ী, এ রাজ্যের সুন্দরবনে বাঘের সংখ‌্যা ছিল ৯৬৷ চলতি বছরের শুমারির তথ‌্য ও ছবি হায়দরাবাদে পাঠানো হয়েছে৷ তার রিপোর্ট এখনো আসেনি৷ তবে বাঘের সংখ‌্যা বাড়ার ঈঙ্গিত মিলেছে৷ নতুন ২৭টি রয়েল বেঙ্গলের খোঁজ পাওয়া গেছে।’দুই দেশ মিলিয়ে সুন্দরবনের মোট আয়তন ১০ হাজার বর্গ কিলোমিটার৷এর মধ্যে ছয় হাজার কিলোমিটার বাংলাদেশের অন্তর্গত৷ বাকি চার হাজার কিলোমিটার ভারতে৷

ভারতে বাঘ চলে যাওয়ার কারণ হিসেবে পশ্চিমবঙ্গে বন দপ্তর জানায়, বাংলাদেশে বাঘের খাবার পর্যাপ্ত নেই৷ খাবারের টানে রয়্যাল বেঙ্গল ভারতীয় অংশে চলে আসছে৷ রাজ্য সরকারের উদ্যোগে অরণ্যে বাঘের জন্য পর্যাপ্ত খাবারের জোগান রাখা হয়েছে যাতে চতুষ্পদরা গ্রামে ঢুকতে না পারে৷বনমন্ত্রীর বক্তব্য, ‘‘বাদাবনে বাঘের খাদ্যের যাতে টান না পড়ে, সেই লক্ষ্যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে৷ গভীর জঙ্গলে হরিণ ও শূকর নিয়মিত ছাড়া হয়৷ বাংলাদেশের অংশে এই খাবারের অভাব রয়েছে৷ তাই বাঘ এদেশে (ভারতে) চলে আসছে৷’’

তবে বাংলাদেশের বাঘ ভারতে চলে গেছে এমন কথা মানতে না রাজ রাজ্যের প্রাক্তন পরিবেশ কর্মকতা প্রণবেশ সান্যাল। তিনি সুন্দরবন বাঘ প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন৷তিনি বলেন, ‘‘কোভিডের জেরে বছর দুয়েক অরণ্যে মানুষের যাতায়াত কম ছিল৷ সেই সুযোগে বাঘের ছানা নিশ্চিন্তে বেড়েছে। তাই ঘন ঘন বাঘ দেখা যাচ্ছে৷ প্রাপ্তবয়স্ক বাঘের সংখ্যা সুন্দরবনে বেড়েছে৷ তার মানে বাংলাদেশের বাঘ চলে এসেছে, এটা ভ্রান্ত ধারণা৷’’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ