মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন

কাবুলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিহত ১৯

প্রতিনিধির / ২১ বার
আপডেট : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিহত ১৯
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিহত ১৯

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আত্মঘাতী হামলায় ১৯ জন নিহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে স্থানীয় পুলিশ।

বিস্ফোরণটি আফগানিস্তানের পশ্চিম কাবুলের দাশত-ই-বারচি এলাকায় ঘটেছে, একটি প্রধানত শিয়া মুসলিম এলাকা যেখানে সংখ্যালঘু হাজারা সম্প্রদায়ের আবাসস্থল।

পুলিশ মুখপাত্র খালিদ জাদরান বলেন, শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল সেই সময় এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী সেখানে বিষ্ফোরণ ঘটায়। তিনি জানান দুর্ভাগ্যবশত, ১৯ জন শহীদ হয়েছেন এবং ২৭ জন আহত হয়েছেন।

অনলাইনে পোস্ট করা ভিডিও এবং স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত ফুটেজে দেখা যায় আহতদের রক্তাক্ত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্দুল নাফি টাকোর এক টুইটার পোষ্টে বলেছেন, নিরাপত্তা দলগুলি ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে, হামলার প্রকৃতি এবং হতাহতের বিস্তারিত পরে প্রকাশ করা হবে।

এই হামলার কোনো গোষ্ঠী দায় স্বীকার করেনি, তবে এক বছর আগে আইএস একই এলাকার একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছিল যেখানে ছাত্রসহ ২৪ জন নিহত হয়।

গত বছর আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতায় প্রত্যাবর্তনের ফলে দুই দশকের যুদ্ধের অবসান ঘটে এবং সহিংসতায় উল্লেখযোগ্য হ্রাস পায়, কিন্তু সাম্প্রতিক মাসগুলোতে কট্টর ইসলামপন্থীদের অধীনে নিরাপত্তার অবনতি হতে শুরু করেছে।

আফগানিস্তানের শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের লোকেরা কয়েক দশক ধরে নিপীড়নের সম্মুখীন হয়েছে, তালেবানরা ১৯৯৬ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত প্রথম শাসন করার সময় এই গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অপব্যবহারের অভিযোগ এনেছে। এছাড়াও হাজারারা ইসলামিক স্টেট গ্রুপের আক্রমণেরও ঘন ঘন লক্ষ্যবস্তু।

গত বছর, তালেবানদের প্রত্যাবর্তনের আগে, দাশত-ই-বারচিতে তাদের স্কুলের কাছে তিনটি বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৮৫ জন নিহত এবং প্রায় ৩০০ জন আহত হয়েছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ