মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন

মাস্কের মন্তব্য ঘিরে চীন-তাইওয়ানের মিশ্র প্রতিক্রিয়া

প্রতিনিধির / ১৬ বার
আপডেট : সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০২২
মাস্কের মন্তব্য ঘিরে চীন-তাইওয়ানের মিশ্র প্রতিক্রিয়া
মাস্কের মন্তব্য ঘিরে চীন-তাইওয়ানের মিশ্র প্রতিক্রিয়া

বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান ইলন মাস্কের মন্তব্য ঘিরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে চীন ও তাইওয়ান। সম্প্রতি ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মাস্ক বলেন, তাইওয়ানের আংশিক নিয়ন্ত্রণ বেইজিংয়ের কাছে হস্তান্তর করে সমস্যার সমাধান করা যেতে পারে। তাইওয়ানকে চীনের একটি বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল বানানো উচিত বলে মনে করেন তিনি।

মাস্কের এমন মন্তব্যের নিন্দা জানিয়ে তাইওয়ান বলেছে, তাদের গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা বিক্রির জন্য নয়। ওয়াশিংটনে তাইওয়ানের রাষ্ট্রদূত সিয়াও বি-খিম এক টুইটে বলেন, ‘আমরা অনেক পণ্য বিক্রি করি। কিন্তু গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা বিক্রি করি না।’

সিয়াও বি-খিম আরও বলেন, ‘আমাদের ভবিষ্যতের জন্য যে কোনো প্রস্তাব এমনভাবে দিতে হবে যেন তা অবশ্যই শান্তিপূর্ণ, জবরদস্তি মুক্ত এবং তাইওয়ানের জনগণের গণতান্ত্রিক চেতনার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়।’

সম্প্রতি ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চীন-তাইওয়ান সংকট নিয়ে ইলন মাস্ক বলেন, ‘আমার পরামর্শ হলো, তাইওয়ানকে একটি বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল হিসেবে গড়ে তোলা উচিত। এটা সম্ভবত সব পক্ষের জন্য ভালো হবে। আর এই পদক্ষেপ হওয়া উচিত হংকংয়ের চাইতে নমনীয়।’

তবে মাস্কের ওই প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছে বেইজিং। যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত কিন গ্যাং এক টুইটে বলেন, ‘তাইওয়ান প্রণালি নিয়ে শান্তির আহ্বান এবং একটি বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ইলন মাস্কের পরামর্শের জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। সত্যি বলতে, শান্তিপূর্ণভাবে পুনরায় একত্রীকরণ এবং এক দেশ, দুই নীতি ব্যবস্থাই তাইওয়ান প্রশ্নের সমাধানের জন্য আমাদের মীল নীতি এবং সর্বোত্তম পন্থা।’

এর আগে রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট সমাধানে সংযুক্ত অঞ্চলগুলোতে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের পরামর্শ দিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন ইলন মাস্ক। এবার চীন-তাইওয়ান ইস্যু নিয়ে মন্তব্য করে নতুন সমালোচনার জন্ম দিলেন এই মার্কিন ধনকুবের।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ