শিরোনাম:
চলতি অর্থবছরে রিজার্ভ থেকে ছয় হাজার ৫০ মিলিয়ন ডলার বিক্রি অবশেষে সিনেমার নায়ক হচ্ছেন আফরান নিশো সহযোগিতা চেয়ে ন্যাটো সদস্যদের প্রতি আহ্বান ইউক্রেনের আফগানিস্তানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বোমা হামলায় নিহত ১৫ আহত ২০ নাটোর জেলায় দুই কোটি ৪৫ লাখ ৪১ হাজার টাকার প্রণোদনা পাচ্ছেন ৪৪ হাজার কৃষক ঢাবি শিক্ষকদেরর গবেষণা ভাতাসহ অন্যান্য বাতিলকৃত সুযোগ-সুবিধা পুনর্বহালের দাবি ইরানকে হারিয়ে শেষ ষোলতে যাওয়ার টিকিট পেল যুক্তরাষ্ট্র সম্মুখসারির যোদ্ধা, ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি এবং গর্ভবতীদের টিকার চতুর্থ ডোজ দেয়ার সুপারিশ তিন মাস অপেক্ষার পর আইন মন্ত্রণালয়ের সাড়া পেল ইসি নতুন করে রেকর্ড বইয়ে নাম তুলেছে ব্রাজিল
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৫২ পূর্বাহ্ন

স্কুল ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত

প্রতিনিধির / ১৪ বার
আপডেট : সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০২২
স্কুল ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত
স্কুল ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত

রংপুরের পীরগঞ্জে খেতাবেরপাড়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন ঘিরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সুমন ইসলাম আকাশ (১৪) নামের অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পুলিশের ওসিসহ অন্তত ২৫ জন। ঘটনাস্থলে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সোমবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে পীরগঞ্জ উপজেলার ৫ নম্বর মদনখালী ইউনিয়নের খেতাবেরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবী তালুকদার ও সহকারী শিক্ষক আনারুল হকের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানায়, সংঘর্ষের পর থেকে এলাকাজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতদের উদ্ধার করে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্তত ১০ জনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খেতাবেরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে নির্বাচন ঘিরে সোমবার সকাল থেকে প্রধান শিক্ষক নুরন্নবী তালুকদার ও সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল হকের গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে সুমন ইসলাম আকাশ নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র গুরুতর আহত অবস্থায় মারা যায়।

এ সময় সংঘর্ষে পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়ালসহ প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরে সেখান থেকে ওসি আবদুল আউয়ালসহ আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মধ্যে। এ কারণে আবারও সংঘর্ষের আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।

শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল-ডি) মো. কামরুজ্জামান। তিনি বলেন, দুই গ্রুপের সংঘর্ষে থানার ওসি, দুই এসআই এবং এক কনস্টেবলসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ