শিরোনাম:
চলতি অর্থবছরে রিজার্ভ থেকে ছয় হাজার ৫০ মিলিয়ন ডলার বিক্রি অবশেষে সিনেমার নায়ক হচ্ছেন আফরান নিশো সহযোগিতা চেয়ে ন্যাটো সদস্যদের প্রতি আহ্বান ইউক্রেনের আফগানিস্তানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বোমা হামলায় নিহত ১৫ আহত ২০ নাটোর জেলায় দুই কোটি ৪৫ লাখ ৪১ হাজার টাকার প্রণোদনা পাচ্ছেন ৪৪ হাজার কৃষক ঢাবি শিক্ষকদেরর গবেষণা ভাতাসহ অন্যান্য বাতিলকৃত সুযোগ-সুবিধা পুনর্বহালের দাবি ইরানকে হারিয়ে শেষ ষোলতে যাওয়ার টিকিট পেল যুক্তরাষ্ট্র সম্মুখসারির যোদ্ধা, ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি এবং গর্ভবতীদের টিকার চতুর্থ ডোজ দেয়ার সুপারিশ তিন মাস অপেক্ষার পর আইন মন্ত্রণালয়ের সাড়া পেল ইসি নতুন করে রেকর্ড বইয়ে নাম তুলেছে ব্রাজিল
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন

ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন বাংলাদেশ থেকে ১ হাজার ৩১৬ কোটি ডলার পোশাক আমদানি করেছে

প্রতিনিধির / ২১ বার
আপডেট : বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২২
ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন বাংলাদেশ থেকে ১ হাজার ৩১৬ কোটি ডলার পোশাক আমদানি করেছে
ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন বাংলাদেশ থেকে ১ হাজার ৩১৬ কোটি ডলার পোশাক আমদানি করেছে

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পোশাক আমদানির সর্বশেষ পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় পরিসংখ্যান সংস্থা ইউরোস্ট্যাট।

এ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বছরের সাত মাসে (জানুয়ারি-জুলাই) বাংলাদেশ থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের আমদানি ৪৩ দশমিক ৩৮ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৩১৬ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে।একই সময়ে ইইউর বৈশ্বিক পোশাক আমদানি ২৪ দশমিক ৭৪ শতাংশ বেড়েছে। বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ থেকে মোট ৫ হাজার ৬৩৩ কোটি ডলারের পোশাক আমদানি করেছে এ অঞ্চলের দেশগুলো।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ২০২১ সালের জুলাইয়ের তুলনায় এবারের জুলাইয়ে ইইউর বৈশ্বিক আমদানি প্রবৃদ্ধি ২২ দশমিক ৭০ শতাংশ এবং বাংলাদেশ থেকে প্রবৃদ্ধি ছিল ৩৬ দশমিক ৯০ শতাংশ।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) পরিচালক মো. মহিউদ্দিন রুবেল বণিক বার্তাকে বলেন, এখন অবধি ইইউর আমদানি চিত্রে একটি লক্ষণীয় প্রবৃদ্ধির ধারা প্রতীয়মান।

যা স্পষ্টতই কভিডের পরে বর্ধিত চাহিদা এবং কাঁচামালের মূল্য বৃদ্ধির ফলে ইউনিট প্রতি মূল্য বেড়ে যাওয়ার কারণে ঘটেছে।তিনি এও বলেন, সাম্প্রতিক ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার কারণে খুচরা বিক্রেতারা ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে সংগ্রাম করছে।

অনেক ইউরোপীয় ব্র্যান্ডের খুচরা বিক্রয় উল্লেখযোগ্য পরিমাণে হ্রাস পেয়েছে, যা তাদের ইনেভেন্টরি স্টক বাড়িয়েছে। বৈশ্বিক অর্থনীতিতে চ্যালেঞ্জের প্রেক্ষিতে ইইউর আমদানি বছরের শেষ প্রান্তিকে কমতে পারে।

চলতি বছরের জানুয়ারি-জুলাই সময়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের চীন থেকে বছরওয়ারী আমদানি ২৩ দশমিক ৫২ শতাংশ প্রবৃদ্ধিসহ ১ হাজার ৪৯৩ কোটি ডলারে পৌঁছেছে। উল্লেখযোগ্য অন্যান্য প্রবৃদ্ধির দেশ হলো- কম্বোডিয়া সাড়ে ৪১ শতাংশ, পাকিস্তান ২৮ দশমিক ৫ শতাংশ, ইন্দোনেশিয়া ৩০ দশমিক ৮৬ শতাংশ, ভিয়েতনাম ২২ দশমিক ৭৮ শতাংশ এবং মরক্কো ১৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ