মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন

তৃতীয় ম্যাচে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে কিউই ও লঙ্কানরা

প্রতিনিধির / ২৫ বার
আপডেট : শনিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২২
তৃতীয় ম্যাচে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে কিউই ও লঙ্কানরা
তৃতীয় ম্যাচে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে কিউই ও লঙ্কানরা

সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়ে বড় জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করে লঙ্কানরা। দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারলেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের ব্যপারে আশাবাদী তারা। দলের মিডল-অর্ডার ব্যাটার ভানুকা রাজাপাকসে বলেন, দ্বিতীয় জয়ের জন্য মুখিয়ে আছে দল। সব দিক দিয়ে ভারসাম্যপূর্ণ ও শক্তিশালী দল নিউজিল্যান্ড। প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সেই প্রমাণ দিয়েছে তারা। কিউইদের হারাতে হলে তিন বিভাগেই ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে আমাদের।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে আজ মাঠে নামবে গত আসরের রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড। তাদের প্রতিপক্ষ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে কিউই ও লঙ্কানরা।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দুপুর ২টায় শুরু হবে নিউজিল্যান্ড-শ্রীলঙ্কার ম্যাচটি। এর আগে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ৮৯ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করে কিউইরা। অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে উড়তে থাকা নিউজিল্যান্ডকে দ্বিতীয় ম্যাচে পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয়। আফগানিস্তানের বিপক্ষে মেলবোর্নের ওই ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়।

তাই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয়ের ব্যপারে আশাবাদী কিউই ওপেনার ফিন অ্যালেন। তিনি বলেন, প্রথম ম্যাচ জিতলেও পরের ম্যাচে আমরা মাঠেই নামতে পারিনি। বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয় ম্যাচটি। বৃষ্টির উপর তো কারও হাত নেই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামাতে উদগ্রীব দল। দ্বিতীয় জয়ের লক্ষ্য নিয়ে কাল আমরা মাঠে নামবো। এ জন্য নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে। দ্বিতীয় জয়ের জন্য মুখিয়ে আছে শ্রীলঙ্কাও। আমাদের চ্যালেঞ্জ ছুঁেড় দিবে লঙ্কানরা। তাদের চ্যালেঞ্জ নিতে আমরা প্রস্তুত।

দুই ম্যাচে ১ জয় ও ১টি পরিত্যক্ত হওয়ায় ৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘এ’ এর টেবিলের শীর্ষে রয়েছে নিউজিল্যান্ড। অন্যদিকে দুই ম্যাচে ১ জয় এবং ১ হারে ২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ৫ নাম্বারে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টিতে ১৯বার মুখোমুখি হয়েছে নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা। জয়ের দিক দিয়ে এগিয়ে নিউজিল্যান্ডই। কিউইদের জয় ১০টিতে। শ্রীলঙ্কার জয় ৭টিতে। ১টি করে ম্যাচ টাই ও পরিত্যক্ত হয়। ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হওয়া ওই টাই ম্যাচে সুপার ওভারে জিতেছিলো শ্রীলঙ্কা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গতবারের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড।

গত আসরে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে শিারোপা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয় তাদের। এই আসরের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েই প্রতিশোধ নেয় কেন উইলিয়ামসন বাহিনী। প্রথম ম্যাচে দুই ওপেনার ডেভন কনওয়ে ও ফিন অ্যালেনের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের পর অভিজ্ঞ তিন বোলার টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট ও মিচেল স্যান্টনারেরে দুর্দান্ত নৈপুণ্যে অজিদের হারায় তারা। ৫৮ বলে অপরাজিত ৯২ রান করেন কনওয়ে। ১৬ বলে ৪২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন অ্যালেন।

বোলিংয়ে সাউদি মাত্র ৬ রানে ও স্যান্টনার ৩১ রানে ৩টি করে উইকেট নেন। ২ উইকেট শিকার করেন বোল্ট। পরের ম্যাচ ছিল আফগানিস্তানের বিপক্ষে। তবে বৃষ্টির কারণে পরিত্যাক্ত হয় ম্যাচটি। অপরদিকে সুপার টুয়েলভের বাছাইপর্বে গ্রুপ ‘এ’ এর চ্যাম্পিয়ন হয়েই মূলপর্বে খেলার সুযোগ পায় শ্রীলঙ্কা।

সুপার টুয়েলভের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারায় এশিয়ার চ্যাম্পিয়নরা। পরের ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৭ উইকেটে হার মানে শ্রীলঙ্কা। অস্ট্রেলিয়ার মিডল-অর্ডার ব্যাটার মার্কাস স্টয়নিসের বিধ্বংসী ইনিংসের সামনে অসহায়ভাবে হারে লঙ্কানরা। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছিল শ্রীলঙ্কা। দেশের মাটিতে হওয়া সিরিজে ২-১ সব্যাধানে হেরে গিয়েছিল স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ