শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন

অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বরিশাল!

প্রতিনিধির / ৩৫ বার
আপডেট : শুক্রবার, ৪ নভেম্বর, ২০২২
অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বরিশাল!
অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বরিশাল!

সমাবেশের দু’দিন আগে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে বিএনপি’র নেতা-কর্মীরা গণসমাবেশস্থল নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে ইতিমধ্যেই জড়ো হয়েছেন। অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বরিশাল। প্রথমে বাস, পরবর্তীতে তিন চাকার বাহন (থ্রি-হুইলার ও ইজিবাইক) বন্ধ ঘোষণার পর অভ্যন্তরীন রুটের লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) রাত ১২টার পর থেকে সব প্রকার যানবাহন বরিশালে প্রবেশ বন্ধ করা হয়।

বাস, নৌযানসহ অন্যন্যা যানবাহনের মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের বিভিন্ন দাবিতে এ বন্ধ ঘোষণা চলাকালে শুক্রবার (৪ নভেম্বর) সকাল থেকেই বরিশাল নগরী যানবাহন শূন্য হয়ে পড়েছে। এছাড়া নগরীর প্রবেশদ্বারগুলোতে পুলিশের চেকপোস্টে ব্যাপক তল্লাশি লক্ষ্য করা গেছে। বিশেষ করে মোটরসাইকেলসহ রিকশা-ভ্যানে যাতায়াতকারীদের এসব চেকপোস্টে কাগজ-পত্র দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছে ট্রাফিক বিভাগ।

দূর দূরান্ত থেকে আসা এসব নেতা-কর্মীরা জানান, যানবাহন ও লঞ্চ বন্ধের খবর পেয়ে আগে ভাগেই তারা সমাবেশস্থলে পৌঁছে গেছেন।সমাবেশস্থল থাকা বিএনপির মিডিয়া সেলের আহবায়ক জহির উদ্দিন স্বপন বলেন, ভোলার চরফ্যাশনে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর বর্বর হামলা চালানো হয়েছে। এই ধরনের ঘটনা বরিশালের সব জায়গায় ঘটছে। আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা প্রশাসনের সমন্বয়ে বিএনপিকে দমানোর প্রয়াস চালাচ্ছে।

মহানগর বিএনপি’র সদস্য সচিব মীর জাহিদুল কবির জাহিদ বলেন, পরিবহন সেক্টরগুলোর নেতৃত্বস্থানীয়রা সবাই সরকারি দলের পদধারী নেতা। তাদের উদ্দেশ্যে তো বিএনপিকে দমন করাই। প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের পথরুদ্ধ করতে নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত করা হচ্ছে সমাবেশ বানচাল করতে।তিনি বলেন, সমাবেশস্থলে আসার জন্য পথে পথে বাধা সৃষ্টির প্রস্তুতি নিচ্ছে ক্ষমতাসীন দল। কোনো বাধা আমাদের নেতা-কর্মীরা মানবে না। লক্ষ লক্ষ মানুষ সমাবেশস্থলে জমায়েত হবে।মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক পরিমল চন্দ্র দাস জানান, বিএনপি আগে যে সন্ত্রাসী কার্যক্রম করেছে সে জন্যই শ্রমিক নেতারা যানবাহন বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে।বরিশাল মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশের উপ-কমিশনার এসএম তানভীর আরাফাত জানান, ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা রুটিন দায়িত্বে রয়েছেন।

১১ নভেম্বর যুবলীগের সম্মেলনকে ঘিরে দু’ দলের শো-ডাউনে নগর জুড়ে আতংক বিরাজ করছে।বিএনপি’র বিভাগীয় সমাবেশকে কেন্দ্র করে ৪ ও ৫ নভেম্বর বাস মালিক সমিতি ও তিন চাকার বাহন (থ্রি-হুইলার ও ইজিবাইক) মালিক-শ্রমিক সংগঠন নানা দাবিতে বন্ধ ঘোষণা করে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার বরিশাল-ভোলা রুটের লঞ্চ, স্পিডবোর্ড চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। ইতিমধ্যে আওলাদ নামক বরিশাল-ভোলা রুটের লঞ্চে ভেদুরিয়া ঘাটে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, আজ শুক্রবার ও আগামীকাল শনিবার বরিশাল সারাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ