বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০২:১২ অপরাহ্ন

নেতা খুনের জেরে সিলেটে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

প্রতিনিধির / ১১১ বার
আপডেট : সোমবার, ৭ নভেম্বর, ২০২২
নেতা খুনের জেরে সিলেটে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া
নেতা খুনের জেরে সিলেটে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

সিলেট মহানগরে ছুরিকাঘাতে বিএনপি নেতা খুনের ঘটনার জেরে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি, দোকানপাট ও গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

এই ঘটনার পর এর প্রতিবাদে রাত সাড়ে ১১টার দিকে চৌহাট্টা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে মহানগর ছাত্রদলের নেতা কর্মীরা। এ সময় তাদের হাতে লাঠিসোটা ছিল। তারা মিছিল দিয়ে চৌহাট্টা থেকে রিকাবিবাজার পয়েন্টের দিকে যেতে থাকেন। পথে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা তাদের ধাওয়া দেয়। দুপক্ষের মধ্যে বেশ কয়েকবার পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় রিকাবিবাজার নজরুল অডিটোরিয়ামের সামনে বঙ্গবন্ধুর ছবি, কয়েকটি দোকানের শাটার ও একটি প্রাইভেট কার ভাঙচুর করা হয়। একটি মোটরসাইকেলেও আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।খবর পেয়ে দ্রুত সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করে।

রোববার (৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে নগরের আলিয়া মাদরাসা ও জেলা স্টেডিয়াম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রোববার রাত ৯ টার দিকে নগরের আম্বরখানা বড় বাজার এলাকায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খুন হন বিএনপি নেতা আ ফ ম কামাল। তিনি সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক, জেলা ছাত্রদলের সাবেক প্রচার সম্পাদক ও সিলেট ‘ল’ কলেজের জিএস ছিলেন। তাঁর বাসা নগরের সুবিদবাজার এলাকায়।

এবিষয়ে রাত সোয়া একটায় নগর পুলিশের উপকমিশনার উত্তর আজবাহার আলী শেখ ঘটনাস্থল থেকে বলেন, উত্তেজনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে ওখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বে এই হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ। তিনি আজকের কে বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পেরেছি মৃত বিএনপি নেতার ব্যবসায়িক দ্বন্দ্ব ছিল। কয়েকদিন আগে কোতোয়ালী থানায় মামলাও হয়েছে। তিনি বলেন, যেহেতু হত্যার প্রাথমিক কারণ পাওয়া গেছে, আমরা আশা করছি দ্রুত আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পারব।

এদিকে, বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুরে প্রতিবাদে তাৎক্ষণিক মিছিল পরবর্তী সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। সমাবেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন বলেন, রাতের মধ্যে ছবি ভাঙচুরকারীদের গ্রেপ্তার করা না হলে আগামী ১৯ নভেম্বর বিএনপির সিলেট বিভাগীয় গণসমাবেশ প্রতিহত করা হবে।সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান জানান, বিএনপির নেতাকর্মীরা বিনা উস্কানিতে মিছিল থেকে কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভার ফটকে ভাঙচুর চালায়। এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি ভাঙচুর করে তারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ