সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

১৪ বছরের বার্সা ক্যারিয়ার শেষ হলো বিতর্কিতভাবে

প্রতিনিধির / ২৮ বার
আপডেট : বুধবার, ৯ নভেম্বর, ২০২২
১৪ বছরের বার্সা ক্যারিয়ার শেষ হলো বিতর্কিতভাবে
১৪ বছরের বার্সা ক্যারিয়ার শেষ হলো বিতর্কিতভাবে

বিশ্বকাপ বিরতির পর আর বার্সেলোনার জার্সিতে খেলবেন না বলে বৃহস্পতিবার ঘোষণা দেন জেরার্ড পিকে। মঙ্গলবার রাতে ওসাসুনার মাঠে লা লিগায় কাতালানদের জার্সি শেষবার পরার কথা ছিল তার। কিন্তু বেঞ্চ থেকে মাঠে নামার আগেই দেখলেন লাল কার্ড। ১৪ বছরের বার্সা ক্যারিয়ার শেষ হলো বিতর্কিতভাবে। কাতালানদের হয়ে এটি ছিল তার ১১তম লাল কার্ড এবং লা লিগায় অষ্টম।একই ম্যাচে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে রবার্ট লেভানডোভস্কিকেও। রেফারি জেসুস গিল মানজানোর নানা সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বার্সা কোচ জাভি হার্নান্দেজও দেখেছেন হলুদ কার্ড।

 

ওসাসুনার মাঠে ১০ জনের দল নিয়েও অবশ্য ২-১ গোলে ম্যাচটি জিতে এসেছে বার্সা। ১৪ ম্যাচে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থেকে বিশ্বকাপ বিরতিতে যাচ্ছে তারা। এক ম্যাচ কম খেলে রিয়াল মাদ্রিদ (৩২) পাঁচ পয়েন্ট পেছনে থেকে দ্বিতীয় স্থানে।

 

বার্সার বাজে শুরুটা আরও বাজে হয়ে ওঠে। প্রথমে ডেভিড গার্সিয়া ষষ্ঠ মিনিটে কর্নার থেকে ওসাসুনাকে লিড এনে দেন। ৩১তম মিনিটে দ্বিতীয় বুকিংয়ে লাল কার্ড দেখেন লেভানডোভস্কি। ১১তম মিনিটে নাচো ভিদালকে টেনে দেখেন প্রথম হলুদ কার্ড। ২০ মিনিট পর গার্সিয়ার মুখে বাহু দিয়ে ধাক্কা মেরে পান মার্চিং অর্ডার। প্রায় ১০ বছরে দ্বিতীয় লাল কার্ড দেখলেন পোলিশ স্ট্রাইকার। ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে হ্যামবুর্গের বিপক্ষে বুন্দেসলিগায় বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের জার্সিতে খেলার সময় প্রথম লাল কার্ড দেখেন তিনি।

 

দুই দলই চারবার বুকিংয়ের মুখে পড়েছে। রেফারির সঙ্গে ক্ষেপে যাওয়ায় হলুদ কার্ড দেখেন জাভিও। তার ক্ষোভ ছিল প্রথম গোল নিয়ে। বিল্ডআপের সময় বার্সা খেলোয়াড় ফাউলের শিকার হন। গোলটি বাতিলের আবেদন জানালে মানজানো তা কানে নেননি। এনিয়ে প্রথমার্ধের শেষ দিকে বেঞ্চ থেকে ক্ষোভ ঝারেন পিকে এবং দেখেন লাল কার্ড। বিরতির সময় রেফারিকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিও দিতে শোনা যায় ভিডিওতে।শেষ পর্যন্ত স্বস্তির জয় পেয়েছে বার্সা। যদিও বিরতির আগে অফসাইডে ফেরান তোরেসের একটি গোল বাতিল হয়। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে পেদ্রি সমতা ফেরান এবং খেলা শেষ হওয়ার পাঁচ মিনিট আগে রাফিনহা বক্সের বাইরে থেকে হেড করে জয়সূচক গোল করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ