শিরোনাম:
৭০টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে রাশিয়া দাবি ইউক্রেনের আজ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম জাতীয় সম্মেলন চলতি বছর ৫৮ হাজার ডেঙ্গু রোগীর মধ্যে ৩৬ হাজার ঢাকার কুমিল্লায় যাত্রীবাহী বাসের সাথে সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত এক কোন কোন ভুল ব্যবহারে স্মার্টফোনের আয়ু কমতে পারে সরবরাহ ব্যবস্থায় নানা ধরনের সমস্যা সত্ত্বেও বিশ্বে অস্ত্র বিক্রি বেড়েছে বাজারদরের চেয়ে সরকার নির্ধারিত মূল্য কম হওয়ায় চাল দিচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ইউনিক আইডি সরবরাহ করা হতে পারে ৮৩৪টি বিয়ার ক্যানসহ রাজধানীতে গ্রেফতার ১ প্র্যাকটিস ম্যাচে আহত বাংলাদেশ-এ দলের ক্রিকেটার মোসাদ্দেক
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৩১ অপরাহ্ন

১ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন সার কেনার প্রস্তাবের অনুমোদন সরকারের

প্রতিনিধির / ২৫ বার
আপডেট : বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২
১ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন সার কেনার প্রস্তাবের অনুমোদন সরকারের
১ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন সার কেনার প্রস্তাবের অনুমোদন সরকারের

অতিরিক্ত সচিব জানান, বুধবারের বৈঠকে কৃষি মন্ত্রণালয়ের এমওপি ও ডিএপি সার ক্রয়ে দুটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হলে দুটিই অনুমোদন দেয়া হয়

বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ সংক্রান্ত আলাদা ৮টি প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়। এতে মোট ২ হাজার ৫৪৯ কোটি ৭৬ লাখ ৫৩ হাজার ৯১২ টাকা খরচ হবে।বৈঠক শেষে অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত সাংবাদিকদের তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সাইদ মাহবুব খান। তিনি জানান, বুধবার অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২৬তম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ৩৪তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ক্রয় কমিটিতে ৮টি প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ৪টি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের ২টি, বিদ্যুৎ বিভাগের ১টি এবং সেতু বিভাগের ১টি প্রস্তাবনা ছিল।

অতিরিক্ত সচিব জানান, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড থেকে পঞ্চম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮৯ কোটি ২৮ লাখ ৪৭ হাজার ৩৬৯ টাকা।

একই মন্ত্রণালয়ের অধীন বিসিআইসির জন্য সৌদি আরবের এসএবিআইসি এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে ১৩তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৯ কোটি ২৮ লাখ ৪৭ হাজার ৩৬৯ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।এছাড়া সৌদি আরব থেকে অপর একটি লটে এসএবিআইসি এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে ১৪তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৯ কোটি ২৮ লাখ ৪৭ হাজার ৩৬৯ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।এরমধ্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) জন্য কানাডা থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন মিউরেট অব পটাশিয়াম (এমওপি) সার ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রতি মেট্রিক টন সারে দাম পড়বে ৭৮৮ মার্কিন ডলার। যার আগের দর ছিল ৮২১ মার্কিন ডলার। মোট ব্যয় হবে ৪১৬ কোটি ৫৩ লাখ ৬৮ হাজার টাকা।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) জন্য সৌদি আরব থেকে ৪০ হাজার মেট্রিক টন ডাই-অ্যামোনিয়াম ফসফেট (ডিএপি) সার ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রতি মেট্রিক টন সারের দাম পড়বে ৭২৫ দশমিক ২৫ মার্কিন ডলার, যা আগে ছিল ৮২৬ দশমিক ৫০ মার্কিন ডলার। এতে মোট ব্যয় হবে ৩০৮ কোটি ৭৮ লাখ ২৪ হাজার ৪০০ টাকা।এছাড়া ডিএপি ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (ডিএপিএফসিএল)-এর জন্য ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক অ্যাসিড মেসার্স সান ইন্টারন্যাশনাল এফজেডই, ইউএই (স্থানীয় এজেন্ট: মেসার্স আর. কে. এন্টারপ্রাইজ, ঢাকা) থেকে ২১৫ কোটি ১৪ লাখ ৭০ হাজার ৮৮০ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।এর আগে গত ১০ নভেম্বর ইউরিয়া ও এমওপি মিলিয়ে ১ লাখ ৬০ হাজার টন সার কেনার অনুমোদন দেয় সরকার।

সেদিন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনকে (বিসিআইসি) রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে কাতারের মুনতাজাত থেকে দশম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ২০১ কোটি ৭৪ লাখ ৮৫ হাজার ৯২১ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়। এ ছাড়াও কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (কাফকো), বাংলাদেশের কাছ থেকে অষ্টম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৯১ কোটি ৩ লাখ ১১ হাজার ৮৩৭ টাকায় কেনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।এ ছাড়া কৃষি মন্ত্রণালয়ের জন্য বেলগ্রেড থেকে ১ লাখ মেট্রিক টন এমওপি সার কেনার অনুমোদন দেয়া হয়। এতে মোট খরচ হবে ৯০৬ কোটি ৬৯ লাখ ১৮ হাজার টাকা। প্রতি টনের দাম পড়বে ৮৫৪ মার্কিন ডলার।

 

তারও আগে ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়া ক্রয় কমিটির সভায় কাতার, আরব আমিরাত ও ইন্দোনেশিয়া থেকে ১ লাখ ১৫ হাজার মেট্রিক টন সার কেনার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।সেদিনের সভায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে কাতারের মুনতাজাত থেকে নবম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৯৮ কোটি ৬২ লাখ ৩০ হাজার ৫৬৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়। একই চুক্তির আওতায় আরব আমিরাতের ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড থেকে তৃতীয় লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৯৮ কোটি ৬২ লাখ ৩০ হাজার ৫৬৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়।

অপর এক প্রস্তাবে বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) অধীন রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড থেকে চতুর্থ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৯৮ কোটি ৬২ লাখ ৩০ হাজার ৫৬৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়।কৃষি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) অধীন রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে ইন্দোনেশিয়া থেকে ২৫ হাজার টন টিএসপি সার ১৪৮ কোটি ৬৫ লাখ ৪৬ হাজার ৮৭৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়। প্রতি মেট্রিক টনের দাম ৫৬২ দশমিক ৫ মার্কিন ডলার, যা আগে ছিল ৭০৪ দশমিক ২৫ মার্কিন ডলার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ