সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন

ঠিক কি কারণে ইরানের সুপ্রিম লিডার খামেনির ভাগ্নিকে গ্রেপ্তার করা হল?

প্রতিনিধির / ২৬ বার
আপডেট : সোমবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২২
ঠিক কি কারণে ইরানের সুপ্রিম লিডার খামেনির ভাগ্নিকে গ্রেপ্তার করা হল?
ঠিক কি কারণে ইরানের সুপ্রিম লিডার খামেনির ভাগ্নিকে গ্রেপ্তার করা হল?

ইরানের সুপ্রিম লিডার আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির ভাগ্নি ফারিদা মোরাদখানিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এক ভিডিও বার্তায় তিনি বিদেশী সরকারগুলোকে ইরানের সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের আহ্বান জানিয়েছিলেন। এরপরই বুধবার গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। এ খবর দিয়েছে সিএনএন।

ফারিদা আরও বলেন, এখন ইতিহাসের একটি গুরুত্বপূর্ণ সময় চলছে।বিশ্ব দেখছে যে কীভাবে ইরানের মানুষ খালি হাতে শাহসের সঙ্গে খারাপ শক্তির বিরুদ্ধে লড়ছে। নিজের জীবন দিয়ে এই ভারি দায়িত্ব পালন করে চলেছে ইরানের মানুষ। এই শাসকগোষ্ঠী হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করেছে। তাই তাদেরকে সমর্থন দেয়া বন্ধ করতে হবে। তিনি ওই ভিডিও বার্তায় বিশ্বের ‘গণতান্ত্রিক’ দেশগুলোকে ইরান থেকে তাদের প্রতিনিধিদের ফিরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানান। পাশাপাশি নিজেদের দেশ থেকেও ইরানি প্রতিনিধিদের বহিস্কারের দাবি জানান তিনি।

খবরে জানানো হয়, ফারিদাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ভাই মাহমুদ মোরাদখানি। এর আগে তার টুইটার একাউন্ট থেকেই ফারিদা ওই ভিডিওটি প্রকাশ করেছিলেন। এতে তিনি বিশ্বের দেশগুলোর প্রতি অনুরোধ জানান, যাতে তারা ইরানের বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে। তিনি বলেন, বিশ্বের স্বাধীন মানুষেরা, আমাদের পাশে দাঁড়ান। আপনাদের দেশের সরকারকে বলুন যেনো তারা এই শিশু হত্যাকারী ইরানি শাসকদের সমর্থন দেয়া বন্ধ করে। এই সরকার না ধর্মীয় রীতিনীতিতে বিশ্বাস করে না কোনো আইন বা নিয়ম মানে। যেভাবেই হোক তারা ক্ষমতা টিকিয়ে রেখে চলেছে।

উল্লেখ্য, ফারিদা এবং মাহমুদ আলি তেহরানির সন্তান। তিনি নিজেও একজন ধর্মীয় নেতা এবং বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর সমালোচক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তবে গত মাসে তিনি মারা যান। তার স্ত্রী হচ্ছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আলি খামেনির বোন বাদ্রি হোসেইনি খামেনি। তার সন্তানেরা বহুদিন ধরেই ইরানের শাসকগোষ্ঠীর বিরোধিতা করে আসছে। এর আগেও একাধিকবার তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ