সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

১০ ডিসেম্বর সমাবেশকে ঘীরে হেফাজতের পরিণতির হুশিয়ারি আওয়ামী লীগের

প্রতিনিধির / ১৯ বার
আপডেট : শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২২
১০ ডিসেম্বর সমাবেশকে ঘীরে হেফাজতের পরিণতির হুশিয়ারি আওয়ামী লীগের
১০ ডিসেম্বর সমাবেশকে ঘীরে হেফাজতের পরিণতির হুশিয়ারি আওয়ামী লীগের

বিএনপি ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের নামে সন্ত্রাস-নৈরাজ্য করলে হেফাজতের পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

তারা বলেন, সরকার গণতান্ত্রিক পরিবেশ চায় বলেই বিএনপিকে সভা-সমাবেশ করতে দিচ্ছে। এটাকে কোনভাবেই দুর্বলতা ভাবা যাবে না। ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের নামে কোন প্রকার অরাজকতা করলে ছাড় দেওয়া হবে না। ২০১৩ সালে হেফাজতের যে পরিস্থিতি হয়েছিল সেই পরিস্থিতি করবো। বিএনপিকে মোকাবিলা করার জন্য ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগই যথেষ্ট।

বৃহস্পতিবার সাভারে উপজেলা আওয়ামী লীগের যৌথসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। আগামী ১০ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সাভারে বড় ধরনের সমাবেশ করা হবে। সেই সভা সফল করতে এই যৌথসভা ডাকা হয়।

সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা দৌলার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আহসান রাজিবের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ এমপি, সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুন, সাবেক মহিলা সম্পাদক হালিমা আক্তার লাবণ্য, সদস্য সিরাজুল ইসলাম, ফখরুল ইসলাম সমর প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বেনজির আহমেদ বলেন, বিজয়ের মাসে আবারও ১৯৭১ এর পরাজিত শক্তি সভা সমাবেশের নামে নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে চাচ্ছে। বিজয়ের মাসে ঢাকায় কোন ধরনের নৈরাজ্য-সন্ত্রাস বরদাসত করা হবে না। এ জন্য ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ রাজপথে সক্রিয় থাকবে। যেখানেই নৈরাজ্য সেখানেই প্রতিরোধ।

পনিরুজ্জামান তরুন বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সেই সময় বিএনপি দেশের স্থিতিশীল পরিবেশ নষ্ট করতে চায়। তারা সন্ত্রাসের ভাষায় কথা বলছে। ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের নামে নৈরাজ্য করলে কোন ধরনের ছাড় দেওয়া হবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ