রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:১২ অপরাহ্ন

মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়েছে কক্সবাজার

প্রতিনিধির / ২৩ বার
আপডেট : বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২
মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়েছে কক্সবাজার
মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়েছে কক্সবাজার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণ শুনতে উপকূল ও দূরের উপজেলার নেতা-কর্মীরাও কক্সবাজার শহরে জড়ো হতে শুরু করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বিশাল মিছিল নিয়ে আসেন চকরিয়ার এমপি জাফর আলমসহ নেতা-কর্মীরা। তাদের মিছিল আর স্লোগানে মুখর হয়ে উঠেছে কক্সবাজার শহর।

দীর্ঘ পাঁচ বছর পর একদিনের সফরে বুধবার (৭ ডিসেম্বর) কক্সবাজারে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুপুর আড়াইটায় শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেবেন তিনি।জনসভা উপলক্ষে বেলা সাড়ে ১০টা থেকে আসতে শুরু করেছেন নেতা-কর্মীরা। কলাতলী থেকে বেশ কয়েকটি সড়কে যান চলাচল সংরক্ষিত করা হয়েছে। সেসব সড়ক দিয়ে খণ্ড খণ্ড মিছিলে জনসভাস্থলে আসতে শুরু করেছেন নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষ। এতে মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়েছে কক্সবাজার শহর।

সোয়া ১১টার দিকে চকরিয়ার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জেসমিন আক্তার জেসি ও এমপি জাফর আলমের মেয়ে জেলা পরিষদ সদস্য তানিয়া আফরিনের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক নারী মিছিল সহকারে জনসভাস্থলে আসেন। এদের সাথে মিছিল নিয়ে আসেন আইনজীবী নেতা আ জ ম মাইনুদ্দীনের নেতৃত্বে আইনজীবীরা।এরপর একে একে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে জেলার শহরের পাশাপাশি উপজেলা থেকেও মিছিল নিয়ে নেতা-কর্মীরা আসতে থাকে জনসভাস্থলে। এ সময় তাদের স্লোগানে-স্লোগানে মুখর কক্সবাজার শহরের রাজপথ।

বেলা সাড়ে ১০টায় কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের ইনানী-পাটোয়ারটেক সৈকতে অনুষ্ঠিত তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক নৌশক্তি প্রদর্শন মহড়ার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। একই দিন বেলা আড়াইটায় শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেবেন তিনি।জানা গেছে, সর্বসাধারণের জন্য জনসভাস্থল সকাল ৯টার পর খুলে দেওয়া হয়েছে। শুরুর দিকে লোকজন না এলেও ১০টার পর থেকেই লাবণী পয়েন্ট শেখ কামাল স্টেডিয়ামের মাঠে প্রবেশের মূল গেটে মিছিল সহকারে নেতা-কর্মী এসে জটলা করেন।

একেক নেতার অনুসারীরা নিজেদের পরিচয় জানান দিতে পরিধান করেছেন নানা রঙের টি-শার্ট, গেঞ্জি, টুপি। স্লোগান, বাদ্যযন্ত্রে জনসভাস্থলে সৃষ্টি হয়েছে উৎসবের আমেজ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ