শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন

ক্রোয়েশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা

প্রতিনিধির / ২৫ বার
আপডেট : বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২২
ক্রোয়েশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা
ক্রোয়েশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা

মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালে মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে দুটি রেকর্ড গড়েন মেসি। আর পেনাল্টি থেকে গোল করে আরও একটি রেকর্ড গড়েন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।কাতার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলতে নেমেই মাইলফলক স্পর্শ করলেন লিওনেল মেসি।

এদিন আর্জেন্টিনার হয়ে মাঠে নেমেই বিশ্বকাপে সর্বাধিক ম্যাচের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন মেসি। এতদিন তার নামের পাশে শোভা পাচ্ছিল বিশ্বকাপের ২৪টি ম্যাচ। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে হয়ে গেলো ২৫টি ম্যাচ।বিশ্বকাপে এতদিন সর্বাধিক ২৫টি ম্যাচ খেলে শীর্ষে ছিলেন জার্মানির লোথার ম্যাথাউস। এবার মেসি এই রেকর্ডে বসে গেলেন তার পাশে। এই বিশ্বকাপেই ম্যাথাউসকে ছাড়িয়ে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা গড়ে ফেলেন আর্জেন্টাইন তারকা।

বিশ্বকাপে অধিনায়ক হিসেবে এই ম্যাচের আগ পর্যন্ত ১৮টি ম্যাচ খেলে মেসি বসেছিলেন মেক্সিকোর সাবেক অধিনায়ক রাফায়েল মার্কুয়েজের সঙ্গে। আজ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার পর অধিনায়ক হিসেবে মেসির হয়ে গেলো ১৯ ম্যাচ। বিশ্বকাপে এটা একটা রেকর্ড।এই তো গেলো মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে রেকর্ড। এরপর পেনাল্টি থেকে গোল করে আরও একটি রেকর্ড গড়লেন মেসি। আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপে মেসি এবং গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার গোল ছিল সমান ১০টি করে।

ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে পেনাল্টি থেকে গোল করে নতুন রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন তিনি। আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপে এখন সর্বোচ্চ ১১টি গোল লিওনেল মেসির। এই বিশ্বকাপেই ম্যারাডোনাকে ছাড়িয়ে যান মেসি। ম্যারাডোনার ছিল ৮ গোল। মেসি এখনও পর্যন্ত এই বিশ্বকাপে করলেন ৪ গোল।

ম্যাচের শুরু থেকেই আর্জেন্টিনা-ক্রোয়েশিয়া লড়ছে সমানতালে। খেলার ৩২ মিনিটে এনজো ফার্নান্দেজের ফারুণ এক পাস থেকে ডি বক্সের ভেতর বল পান আলভারেজ। তাকে ফাউল করে বসেন ক্রোয়েশিয়ার গোলরক্ষক লিভাকোভিচ। রেফারি সাথে সাথে পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পট কিক থেকে মেসি গোল করে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে নেন। এই বিশ্বকাপে এটি তার ৫ম গোল। তাছাড়া সব মিলিয়ে বিশ্বকাপে ১১টি গোল করলেন মেসি।

খেলার ৩৯ মিনিটে বল পেয়ে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হুলিয়ান আলভারেজ। লিওনেল মেসি ও হুলিয়ান আলভারেজের গোলে ৩৯ মিনিটেই ২-০ তেই এগিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা।বিরতি থেকে ফিরে আরও ভয়ংকর হয়ে ওঠে আর্জেন্টিনা। একের পর এক আক্রমণের ঢেউ আছড়ে পড়তে থাকে ক্রোয়েশিয়ার ডি-বক্সে। এর মধ্যেই মেসি-আলভারেজ জুটির দুর্দান্ত কম্বিনেশনে আরও এক দুর্দান্ত গোল পেয়ে আলবিসেলেস্তারা।

৬৯ মিনিটে মেসি ডানদিকে বল পেয়েই এগিয়ে আসেন ডি বক্সের দিকে। পাশে দুজন থাকলেও মেসিকে থামাতে পারেনি ক্রোয়েশিয়ার কোনো ডিফেন্ডার। একদম লাইনের পাশ থেকে গোলমুখে অসাধারণ পাস দেন মেসি। সেখানে থাকা আলভারেজ আলতো টোকায় জড়িয়ে দেন জালে।  ম্যাচের বাকিটা সময় লিড বাড়ানোর চেষ্টা করে গেছে আলবিসেলেস্তারা। তবে  আর কোনো গোল না হওয়ায় ৩-০ গোলে জিতেই ফাইনাল নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ