শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:৩২ অপরাহ্ন

পৃথিবীর সেরা রিসোর্টের স্বীকৃতি পেল সি পার্ল

প্রতিনিধির / ১২ বার
আপডেট : বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২২
পৃথিবীর সেরা রিসোর্টের স্বীকৃতি পেল সি পার্ল
পৃথিবীর সেরা রিসোর্টের স্বীকৃতি পেল সি পার্ল

দ্য ওয়ার্ল্ড লাক্সারি হোটেল অ্যাওয়ার্ডসে সেরা ৩টি অ্যাওয়ার্ড পেল সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা। সেরা লাক্সারি হোটেলগুলোর মধ্য থেকে বাছাই করে সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পাকে পৃথিবীর সেরা বিচ সাইড লাক্সারি রিসোর্ট হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে গ্লোবাল অর্গানাইজেশন ‘দ্য ওয়ার্ল্ড লাক্সারি হোটেল অ্যাওয়ার্ডস’।

রয়েল টিউলিপ হিসেবে পরিচিত দেশের সবচেয়ে বড় এ লাক্সারি রিসোর্টটি সেরা বিচ সাইড লাক্সারি হোটেল অ্যাওয়ার্ডের পাশাপাশি সেরা লাক্সারি স্পা অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছে। এ ছাড়া সেরা জেনারেল ম্যানেজার অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পার গ্রুপ জিএম আজিম শাহ।

সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পার ব্র্যান্ড অ্যান্ড মার্কেটিং প্রধান আসাদুর রহমান এসব তথ্য জানিয়েছেন। সম্প্রতি তুরস্কের আনাতোলিয়ার সোয়ানডর হোটেলস ও রিসোর্টসে অনুষ্ঠিত দ্য ওয়ার্ল্ড লাক্সারি হোটেল অ্যাওয়ার্ডসের গালা সেরিমনিতে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

 

বিশ্বব্যাপী সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রির সেবার মানদণ্ড ঠিক করে পৃথিবীর বিভিন্ন অভিজাত হোটেলগুলোর মধ্য থেকে সেরাদের অ্যাওয়ার্ড দেয় দ্য ওয়ার্ল্ড লাক্সারি হোটেল অ্যাওয়ার্ডস। দেশের ট্রাভেল সেক্টরের জন্য এটি একটি অবিস্মরণীয় অর্জন। পৃথিবীর সেরা সেরা রিসোর্টকে পেছনে ফেলে দেশের একটি রিসোর্টের ৩টি সেরা অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার ঘটনা এদেশের ট্যুরিজম সেক্টরের জন্য একটি দারুণ অর্জন।

সি পার্লের দায়িত্ব নেওয়া আজিম শাহ বলেন, ‘সি পার্লকে শুধু দেশের নয় পৃথিবীর সেরা রিসোর্টে পরিণত করার জন্য কাজ করে চলেছে সি পার্ল টিম এবং এই স্বীকৃতি পুরো টিমকে আরও বেশি অনুপ্রাণিত করবে।’

তিনি বলেন, ‘সেবার মান প্রতিনিয়ত বাড়ানোর মাধ্যমে দেশের ভ্রমণপ্রিয়দের সেরা সেবা দেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন দেশ থেকে আসা পর্যটক ও প্রফেশনালদের বিশ্বসেরা সেবা দেওয়ার মাধ্যমে বিশ্বসেরার কাতারে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করছে রিসোর্টটি।’

২০১৫ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর চালু হওয়া কক্সবাজারের ইনানী বিচে ১৫ একর জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত এ পাঁচ তারকা হোটেলে ৪৯৩টি কক্ষ ও স্যুট রয়েছে। শুরুর পর থেকেই দেশের ভ্রমণপ্রিয় মানুষের পছন্দের জায়গা হয়ে ওঠে রিসোর্টটি।

রুমের পাশাপাশি ৯টি রেস্টুরেন্ট, ৩টি বার, ৬টি মিটিং ও কনভেনশন ভেন্যু, ২টি সুইমিংপুল, টেনিস ও ব্যাডমিন্টন খেলাসহ নানা সুবিধা সি পার্ল কক্সবাজারকে দেশের লাক্সারি রিসোর্টের কাতারে শীর্ষস্থানে নিয়ে আসে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ