রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৪৬ অপরাহ্ন

হাজার হাজার ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী চাকরি হারিয়ে বিপাকে

প্রতিনিধির / ৩ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩
হাজার হাজার ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী চাকরি হারিয়ে বিপাকে
হাজার হাজার ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী চাকরি হারিয়ে বিপাকে

গুগল, মাইক্রোসফট, অ্যামাজনের মতো তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলো হাজার হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছে। এর জেরে আমেরিকায় কাজ হারিয়েছেন হাজার হাজার ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী। শর্ত মেনে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে চাকরি জোগাড় করতে না পারলে বাতিল হবে ওয়ার্কিং ভিসা। ফলে দেশটিতে বিপাকে পড়েছেন বহু সংখ্যক ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তিকর্মী।

জানা গেছে, গত নভেম্বর থেকে দু’লাখ তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী আমেরিকায় কাজ হারিয়েছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই চাকরি করতেন গুগল, মাইক্রোসফট, অ্যামাজনে।পরিসংখ্যান বলছে, চাকরি থেকে ছাঁটাই যারা হয়েছেন, তাদের মধ্যে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশই ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী। তাদের মধ্যে আবার বেশির ভাগই আমেরিকায় চাকরি করছেন এইচ-১বি বা এল১ ভিসায়।

বিদেশি তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী নিয়োগের জন্য আমেরিকার সংস্থাগুলোকে অনুমোদন দেয় এইচ-১বি ভিসা। এই ভিসার মাধ্যমে আমেরিকার সংস্থাগুলো চীন, ভারতের মতো দেশ থেকে প্রতি বছর প্রায় ১০ হাজার কর্মী নিয়োগ করে। এল-১এ, এল-১বি ভিসার মাধ্যমে অস্থায়ীভাবে ম্যানেজার বা অন্য শীর্ষ পদের জন্য কর্মী নিয়োগ করে আমেরিকান সংস্থাগুলো। এইচ-১বি, এল-১এ ভিসায় যারা আমেরিকায় চাকরি করতে গিয়েছিলেন, তাদের অনেকেই এখন বেকার। এদিকে চাকরি হারানোর ৬০ দিনের মধ্যে নতুন চাকরি না পেলে বাতিল হবে ভিসা। ফলে উদ্বেগে দিন কাটাচ্ছে বহু ভারতীয় পরিবার।

অ্যামাজন সংস্থায় চাকরি করেন গীত (নাম পরিবর্তীত)। তিন মাস আগে এইচ-১বি ভিসা নিয়ে আমেরিকায় গিয়েছিলেন। চলতি সপ্তাহে সংস্থা তাকে চাকরি থেকে ছাঁটাই করেছে। সংস্থায় তার চাকরির শেষ দিন ২০ মার্চ। পরের ৬০ দিনের মধ্যে চাকরি না পেলে দেশে ফিরতে হবে তাকে।এইচ-১বি ভিসায় আমেরিকায় মাইক্রোসফট সংস্থায় চাকরি করেন সীতা (নাম পরিবর্তীত)। ১৮ জানুয়ারি তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছে সংস্থাটি। সীতার এক ছেলেও রয়েছে। ছেলের দায়িত্ব তার কাঁধেই। সীতা জানিয়েছেন, আমেরিকায় হাই স্কুলে পড়ে ছেলে। কলেজে ভর্তি হবে। তার কথায়, “পরিস্থিতি সত্যিই খুব কঠিন।”

সিলিকন ভ্যালির এক উদ্যোক্তা অজয় জৈন ভুতোরিয়া বলেন, “হাজার হাজার ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী, বিশেষত এইচ-১বি ভিসায় আসা কর্মী চাকরি হারাচ্ছেন। এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। চাকরি হারানোর ৬০ দিনের মধ্যে নতুন কাজ না পেলে তারা দেশ ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন।”অজয় জানিয়েছেন, এতে কর্মীদের পরিবারও বিপাকে পড়ছে। তাদের সন্তানদের পড়াশোনার ক্ষতি হচ্ছে। অভিবাসন দফতরের কাছে এইচ-১বি ভিসার শর্ত বদলানোরও দাবি জানিয়েছেন তিনি।

চাকরি যারা খুইয়েছেন, তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে আমেরিকার দু’টি সংগঠন। তাদের মধ্যে একটি আবার প্রবাসী ভারতীয়দের। এই সংগঠন দু’টি নিয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে চাকরিপ্রার্থীদের যোগাযোগ করিয়ে দিচ্ছে। চাকরিপ্রার্থী ভারতীয় প্রযুক্তিকর্মীরা হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ খুলে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রাখছেন। তাতে দেখা গেছে, এক-একটি গ্রুপে ৮০০ জনেরও বেশি সদস্য রয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ