রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

জয়সলমেরে গাঁটছড়া বাঁধছেন সিদ্ধার্থ-কিয়ারা

প্রতিনিধির / ৮৭ বার
আপডেট : রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
জয়সলমেরে গাঁটছড়া বাঁধছেন সিদ্ধার্থ-কিয়ারা
জয়সলমেরে গাঁটছড়া বাঁধছেন সিদ্ধার্থ-কিয়ারা

জয়সলমেরে গাঁটছড়া বাঁধছেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও কিয়ারা আদভানি। কিয়ারা পৌঁছে গিয়েছিলেন আগেই। এবার সূর্যগড় প্রাসাদে পৌঁছালেন পাত্র সিদ্ধার্থ। বিয়ের আগে শেষ বারের মতো আলাদা আলাদা সময় বিমানবন্দরে ফ্রেমবন্দি হতে দেখা গেলো বর কনেকে।

৪ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) জয়সলমেরের সূর্যগড় হোটেলে শুরু হবে উৎসব। বিয়ের আগে শেষ বারের মতো কিয়ারার দেখা মিললো মুম্বাই বিমানবন্দরে। জয়সলমের উড়ে যাওয়ার আগে নায়িকার মুখে লেগে ছিলো তৃপ্তির হাসি।

তারকা এই জুটির বিয়ের চূড়ান্ত কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। এ বার শুধু চার হাত এক হওয়ার অপেক্ষা। পাত্রী কিয়ারা আদভানির পর পরিবারসহ জয়সলমেরে পৌঁছেছেন পাত্র সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। বিয়ের পিড়িতে বসার আগে পাত্রের চোখেমুখে দেখা যায় কিঞ্চিৎ লজ্জা। বিয়ে করতে যাচ্ছেন যে! আলোকচিত্রীদের শুভেচ্ছাবার্তায় সাড়াও দিলেন বলিপাড়ার ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’।

শনিবার দুপুরের আগে জয়সলমেরে পৌঁছান কিয়ারা। তার সঙ্গে ছিলেন পোশাকশিল্পী মণীশ মালহোত্রা। যোধপুর বিমানবন্দরে পৌঁছাতেই হবু কনেকে বিয়ের শুভেচ্ছাবার্তা জানান আলোকচিত্রীরা। বিয়ের ব্যাপারে নিজ মুখে কিছু না বললেও হাসিমুখে ‘থ্যাঙ্ক ইউ’ বলতে ভোলেননি ‘কবীর সিংহ’ খ্যাত অভিনেত্রী।অন্যদিকে, শনিবার বিকেলের দিকেই যোধপুর বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় সিদ্ধার্থ মালহোত্রার পরিবার। বলিউড অভিনেতার মা-বাবা আর আত্মীয়-স্বজনও হাজির বিয়ের অনুষ্ঠানের শামিল হতে।

বিয়ে নিয়ে কেমন উন্মাদনা? প্রশ্নের উত্তরে সিদ্ধার্থের মায়ের খোলামেলা মন্তব্য, ‘আমরা সবাই ভীষণ উত্তেজিত!’ একই সুর নায়কের বাবার গলাতেও। কিয়ারা যে এত দিনের সিদ্ধার্থের পরিবারের সবার সঙ্গেই বেশ ভাল ভাবে মিশে যেতে পেরেছেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।পরনে কালো সোয়েটশার্ট, মাথায় টুপি আর পায়ে স্নিকার্স। রাজস্থানের যোধপুর বিমানবন্দরে নেমে হাসিমুখে বেরোলেন সিদ্ধার্থ। সঙ্গে সঙ্গে ‘শেরশাহ’ খ্যাত অভিনেতাকে ঘিরে ধরেন চিত্রগ্রহকরা। বিয়ের শুভেচ্ছাবার্তা থেকে বিয়ে সংক্রান্ত একাধিক প্রশ্ন। শব্দে তেমন উত্তর দেননি বটে, তবে আকারে-ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিলেন, তাদের শুভেচ্ছাবার্তায় খুশি হয়েছেন তিনি।

গাড়িতে উঠে জয়সলমেরের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার সময় সবাইকে ধন্যবাদও জানালেন সিদ্ধার্থ। সামনে রাজস্থানি পাগড়ি পরিহিত গাড়িচালক। নিমেষের মধ্যে গাড়ি ছুটল জয়সলমেরের সূর্যগড় প্রাসাদের দিকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ