সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন

জেন্ডার সমতা ও অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা বাস্তবায়নে ঢাবিতে সেমিনার

প্রতিনিধির / ৭৭ বার
আপডেট : রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
জেন্ডার সমতা ও অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা বাস্তবায়নে ঢাবিতে সেমিনার
জেন্ডার সমতা ও অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা বাস্তবায়নে ঢাবিতে সেমিনার

জেন্ডার সমতা, অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা বাস্তবায়ন করবে সরকার। এ লক্ষ্যে এশিয়ান সেন্টার ফর ইনক্লুসিভ এডুকেশন (এসিআইই), বাংলাদেশের আয়োজনে ‘নতুন শিক্ষাক্রমে জেন্ডার, ইক্যুইটি ও ইনক্লুশন’ বিষয়ক সেমিনার আয়োজন করা হয়।শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইআর) এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়। সেমিনারের সহ-আয়োজক ছিল প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এবং ভিজ্যুয়ালি ইম্পেয়ার্ড পিপলস সোসাইটি (ভিপস)।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. ফরহাদুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি ছিলেন এনসিটিবির সদস্য (শিক্ষাক্রম) অধ্যাপক এম মশিউজ্জামান, আইইআর পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আবদুল হালিম, মো. আশিক বিল্লাহ প্রমুখ। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন আইইআরের অধ্যাপক ড. এম তারিক আহসান।প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক মো. ফরহাদুল ইসলাম বলেন, নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে নানান চ্যালেঞ্জ থাকলেও বিভিন্ন পর্যায়ের অংশীজনের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহায়তায় নির্দিষ্ট সময়ে এ শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

তিনি উন্নয়ন সহযোগী সংস্থাগুলোকে নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহ্ববান জানান এবং তাদের যে কোনো উদ্যোগে সরকারের পক্ষ থেকে প্রত্যক্ষ সমর্থন ও সহযোগিতা থাকবে বলেও জানান।সেমিনারে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এবং ভিজ্যুয়ালি ইম্পেয়ার্ড পিপলস সোসাইটির (ভিপস) পক্ষ থেকে দুটি আলাদা প্রেজেন্টেশন পরিবেশন করা হয়। সংস্থা দুটি তাদের নানান কার্যক্রম ও চ্যালেঞ্জ তুলে ধরে। সেই সঙ্গে শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে বিশেষত জেন্ডার, ইক্যুইটি ও ইনক্লুশন বিষয়ক উদ্যোগসমূহ তারা অব্যাহত রাখবে এবং সরকারের বাস্তবায়নকারী সংস্থাসমূহের সঙ্গে কোলাবোরেশনের মাধ্যমে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে।

২০২১ সালের আলোকে অভিজ্ঞতাভিত্তিক ‘শিখন ও মূল্যায়ন’, ‘জেন্ডার ইনক্লুসিভ পেডাগোজি ও শিক্ষকের ভূমিকা’ বিষয়ে একটি থিম পেপার উপস্থাপন করা হয়। অধ্যাপক তারিক নতুন শিক্ষাক্রম সম্পর্কে সব পর্যায়ের শিক্ষক, গবেষক ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা প্রত্যাশা করেছেন।সেমিনারে উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা শিক্ষাক্রম বিষয়ে আরও ব্যাপকভাবে সেমিনার-সভা, ওয়ার্কশপ আয়োজনে পরামর্শ দেন। এর মাধ্যমে শিক্ষাক্রম বিষয়ে সবার স্পষ্ট ধারণা দেওয়া সম্ভব হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ