মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন

১৭ বছরে টুইটার

প্রতিনিধির / ৩২২ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ২১ মার্চ, ২০২৩
১৭ বছরে টুইটার
১৭ বছরে টুইটার

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টুইটার। আজ টুইটারের জন্মদিন। ১৬ বছর পার করলো আজ। ২০০৬ সালের ২১ মার্চ মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটার প্রতিষ্ঠিত হয়। তবে এর চার মাস পর ১৫ জুলাই টুইটারের সহ প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডর্সি আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করেন। বর্তমানে বড় বড় সেলিব্রেটি, রাজনীতিবিদের সঙ্গে সাধারণ মানুষও ব্যবহার করছেন এই প্ল্যাটফর্ম।

গত বছর বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক কিনে নেন টুইটার। তবে টুইটারের যাত্রা শুরু হয়েছিল অন্যভাবে। এখনকার মতো যে কেউ চাইলে টুইটার ব্যবহার করতে পারতেন না। যতখুশি লেখাও যেত না এই সাইটে। টুইটার হয়ে ওঠে ব্রেকিং নিউজের বড় উৎস। প্রতিষ্ঠার পর থেকে টুইটার শুধু সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট হিসেবেই নয় বরং বিভিন্ন বিপ্লব, আন্দোলনের প্ল্যাটফর্ম হিসেবেও ব্যবহৃত হয়েছে।২০০৬ সালের মার্চ মাসে জ্যাক ডরসি, নোয়াহ গ্লাস, বিজ স্টোন এবং ইভান উইলিয়ামস টুইটার প্রতিষ্ঠা করেন। সেই বছরের জুলাই মাসে টুইটার চালু এটি। ১০০ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারী প্রতিদিন ৩৪০ মিলিয়ন টুইট পোস্ট করেন। ২০১৩ সালে, এটি দশটি সর্বাধিক জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যে একটি ছিল। এটিকে ‘ইন্টারনেটের এসএমএস’ হিসেবে বর্ণনা করা হয়। ২০১৯-এর হিসেব অনুযায়ী, টুইটারে ৩৩০ মিলিয়নেরও বেশি মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারী ছিল। বাস্তবে, ব্যবহারকারীদের সংখ্যালঘু অংশই বেশিরভাগ টুইট লিখে থাকে।

মার্কিন মাইক্রোব্লগিং এবং সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং পরিষেবা টুইটার। এখানে ব্যবহারকারীরা ‘টুইট’ নামে পরিচিত বার্তা পোস্ট করে এবং যোগাযোগ করে। নিবন্ধিত ব্যবহারকারীরা টুইট পোস্ট, লাইক এবং পুনটুইট করতে পারে। কিন্তু অনিবন্ধিত ব্যবহারকারীরা শুধু সেই টুইটগুলোই পড়তে পারে।বর্তমানে ৩০০ মিলিয়ন সক্রিয় মাসিক ব্যবহারকারী রয়েছে টুইটারের। টুইটার প্রতি সেকেন্ডে পাঠানো সর্বোচ্চ সংখ্যক টুইটের রেকর্ড স্থাপন করেছে, যার সংখ্যা ১ লাখ ৪৩ হাজার ১৯৯টি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ