রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন

হজযাত্রী নিবন্ধনে খালি থাকছে ৯ শতাংশ কোটা

প্রতিনিধির / ৬৪ বার
আপডেট : সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০২৩
হজযাত্রী নিবন্ধনে খালি থাকছে ৯ শতাংশ কোটা
হজযাত্রী নিবন্ধনে খালি থাকছে ৯ শতাংশ কোটা

অস্বাভাবিক খরচ বৃদ্ধির কারনে হজযাত্রী নিবন্ধনে পাঁচ দফা সময় বাড়ানো হলেও আগ্রহ বাড়ছে না। আজ সোমবার শেষ হচ্ছে নিবন্ধন। ইতিমধ্যে হজ প্যাকেজের খরচ প্রায় ১২ হাজার টাকা কমিয়েও লাভ হয়নি। কোটা পুরনে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। বেসরকারি নিবন্ধনের সংখ্যা আস্তে-ধীরে বাড়লেও সরকারি নিবন্ধনের সংখ্যা যৎসামান্য।

গত এক সপ্তাহে সরকারিভাবে নিবন্ধন করেছেন মোট দুই শতাধিক হজযাত্রী। সৌদি সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী এবার বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যেতে পারবেন। কিন্তু দফায় দফায় নিবন্ধনের সময় বাড়িয়েও এই কোটা পূরণ করা যায়নি। গতকাল রাত সোয়া ৯ টা পর্যন্ত কোটা পূরণ হতে এখনো ১১ হাজার জনের বেশী বাকি; যা মোট কোটার ৯ শতাংশ। এটা দেশের জন্য নজিরবিহিন ঘটনা। অতীতে এমন কখনো হয়নি। বরং হজের মৌসুম এলে হজে যাওয়ার জন্য মানুষের তীব্র আগ্রহ লক্ষ্যকরা যায়। গত বছরের তুলনায় প্রায় দুই লাখ টাকা হজ প্যাকেজ বৃদ্ধির কারনে প্রাক-নিবন্ধনকারীদের অনেকেই টাকা তুলে নিয়েছেন।

আকাশচুম্বি হজ প্যাকেজ ও বিমান ভাড়া নিয়ে সমালোচনা,হাইকোর্টের নির্দেশনা ও সর্ব মহলের আপত্তির প্রেক্ষিতে গত ২৩ মার্চ হজ প্যাকেজের মূল্য ১১ হাজার ৭২৫ টাকা কমানোর ঘোষণা দেয় ধর্ম মন্ত্রণালয়। একই সময়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় বিমান মন্ত্রণালয়কে বিমান ভাড়া কমানোর জন্য চিঠি দিয়েছিল। কিন্তু বিমান কর্তৃপক্ষ সাফ জানিয়ে দিয়েছে,’ভাড়া কমানো হবে না’।

গত বছর হজযাত্রীদের জন্য বিমানভাড়া ছিল ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। এ বছর তা ৫৮ হাজার টাকা বাড়িয়ে ১ লাখ ৯৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।হজ এজেন্টগুলোর কর্নধাররা বলছেন,প্রতি বছর হজের কয়েক মাস আগে হজ এজেন্সিগুলো ব্যস্ত সময় পার করলেও এবার দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। বেশিরভাগ অফিসে তেমন ব্যস্ততা নেই। এবার হজ করতে আগ্রহী প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন প্রায় আড়াই লাখ মুসল্লী। কিন্তু এখন চূড়ান্ত নিবন্ধনে এসে হজযাত্রীর কোটা পূরন হচ্ছে না।

ধর্ম মন্ত্রণালয় নিবন্ধনের সময় বাড়ালেও লাভ নেই। খরচ যে হারে বেড়েছে তাতে যারা যাবেন না,তারা তো আর সিদ্ধান্ত বদলাবেন না। এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিমানভাড়াসহ হজের খরচ পুনর্নিধারণ করা জরুরি। আল এহসান ট্রাভেল এজেন্সির এনায়েত মিয়া বলেন,প্রতিবছর এই সময়টাতে এজেন্সিগুলোতে হজযাত্রীদের আসা-যাওয়া,ভীড়ে মুখর থাকতো এজেন্সি অফিস। প্রাক-নিবন্ধনকারীদের অধিকাংশই এই সময়টাতে হজে যাওয়ার জন্য নানাভাবে তদবির করতেন। তবে এ বছর তেমন কোনো ব্যস্ততা নেই।

বরং যারা প্রাক-নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছিলেন,তারা ওমরাহ করতে সৌদি যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিতে বলছেন। তিনি বলেন,২০২২ সালে হজের খরচ সাড়ে পাঁচ লাখ টাকার মতো ছিল। গত বছর করোনার কারণে নানা ধরনের বিধিনিষেধ ছিল। তাই খরচ অনেক বাড়তি ছিল। সবাই ভেবেছিলেন এবার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় খরচ কিছুটা কমবে; কিন্তু নানা খাতে খরচ বেড়ে প্রায় সাত লাখ হওয়ায় অনেকেই হজে যাওয়ার সামর্থ্য হারিয়েছেন। এদিকে ৫ম দফার শেষ সময় আজ বিকালে।

গতকাল সোয়া রাত ৯ টা পর্যন্ত ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজযাত্রী নিবন্ধন সিস্টেমের হিসাব অনুযায়ী সরকারী ও বেসরকারী মোট নিবন্ধিত হয়েছেন ১ লাখ ১৬ হাজারের মতো। তাদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯ হাজার ৮৫২ জন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ৬ হাজার ২২৬ জন নিবন্ধন করেছেন। চলতি ২০২৩ সালে হজে যেতে ইচ্ছুক হিসেবে প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন দুই লাখ ৪৯ হাজার ২২৪ জন। এদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন আট হাজার ৩৯১ জন।

আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন দুই লাখ ৪০ হাজার ৮৩৩ জন। তবে এখন তাদের চূড়ান্তভাবে নিবন্ধন করতে বলা হলে অনেকেই আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন,অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার বিমানভাড়া অনেক বেশি হওয়ায় হজের খরচ বেশি। তাই নিবন্ধন তুলনামুলক কম হচ্ছে। খরচ বাড়ার অন্যতম কারণ বিমানভাড়া। আমরা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সকে ভাড়া যৌক্তিক করার আহ্বান জানাচ্ছি।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিউল আজিম জানান,চলতি বছরের হজ ফ্লাইট আগামী ২১ মে থেকে শুরু হবে। এ বছর প্রাক-হজ ফ্লাইটে ১৬০টি ডেডিকেটেড ফ্লাইট পরিচালনা করবে বাংলাদেশ বিমান। হজের আগে ২২ জুন বিমানের হজ ফ্লাইট শেষ হবে। নির্ধারিত সময় ২১ মে রাত পৌনে ৪টায় প্রথম ফ্লাইট বিজি-৩০০১ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জেদ্দার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে। ফ্লাইটটি জেদ্দা বিমানবন্দরে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টায় অবতরণ করবে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২৭ জুন হজ হতে পারে।

তিনটি বিমান সংস্থার ফ্লাইটের শিডিউল চেয়ে চিঠি: এ বছর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স,সৌদিয়া এয়ারলাইন্স ও ফ্লাই নাস হজযাত্রী বহন করবে। ‘সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার জন্য’ জরুরি ভিত্তিতে এবারের হজ ফ্লাইটের সময়সূচি জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়। রোববার মন্ত্রণালয় থেকে হজযাত্রী পরিবহনের সঙ্গে যুক্ত তিনটি সংস্থা- বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স,সৌদিয়া এয়ারলাইন্স ও ফ্লাই নাসের কাছে এই চিঠি পাঠানো হয়।

সৌদি আরব তুলে নিল বয়সসীমা: এবার হজ পালনের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন বয়স ১২ বছর হতে হবে বলে যে শর্ত দিয়েছিল,তবে সেই শর্ত তুলে নিয়েছে সৌদি সরকার। এখন থেকে পবিত্র হজ পালন করতে পারবে ১২ বছরের নিচের বয়সীরাও। এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ