বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০১:২১ অপরাহ্ন

ডেন্টা‌লে ভর্তির আবেদন শুরু, পরীক্ষা ৫ মে

প্রতিনিধির / ১৫৫ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ, ২০২৩
ডেন্টা‌লে ভর্তির আবেদন শুরু, পরীক্ষা ৫ মে
ডেন্টা‌লে ভর্তির আবেদন শুরু, পরীক্ষা ৫ মে

আগামী ৫ মে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে সরকারি-বেসরকারি ডেন্টাল কলেজ ও মেডিক্যাল কলেজ ডেন্টাল ইউনিটে বিডিএস ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আজ সকাল ১০টা থেকে অনলাইনে আবেদন শুরু হয়েছে। আবেদন করা যা‌বে আগামী ৮ এপ্রিল পর্যন্ত।

দৈনিক ইত্তেফাকের সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করুন
মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা) ডা. মুজতাহিদ মুহাম্মদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।তিনি ব‌লেন, মঙ্গলবার সকাল থেকে বিডিএস ভর্তি আবেদন শুরু হয়েছে। আগামী শ‌নিবার (৮ এপ্রিল) রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদন ফি জমা দেওয়া যাবে ৯ এপ্রিল (রোববার) রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

এ ছাড়াও আবেদনকৃত শিক্ষার্থীরা ৩০ এপ্রিল থেকে ২ মে পর্যন্ত তা‌দের প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবে। ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৫ মে (শুক্রবার)। সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হ‌বে।প্রসঙ্গত, ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীকে ২০২২ সা‌লের এইচএসসি/এ লেভেল/সমমান ও ২০২০ সনে এসএসসি/ ও লেভেল/সমমান অথবা ২০২১ সনে এইচএসসি/এ লেভেল/সমমান ও ২০১৯ সনে এসএসসি/ও লেভেল/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় পাসের পূর্ববর্তী ২ বছরের মধ্যে এসএসসি/ সমমান পরীক্ষায় পাস হতে হবে।

এসএসসি/ও লেভেল/সমমান পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ এবং এইচএসসি/এ লেভেল/সমমান পরীক্ষায় জীববিজ্ঞান, পদার্থবিজ্ঞান ও রসায়নসহ উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীরা আবেদনের যোগ্য ব‌লে বিবেচিত হবে। এসএসসি/সমমান এবং এইচএসসি/সমমান দুটি পরীক্ষায় মোট জিপিএ কমপক্ষে ৯ পয়েন্ট হতে হবে।পূর্ববর্তী বছরের এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের সর্বমোট নম্বর থেকে ৫ নম্বর বাদ দিয়ে এবং পূর্ববর্তী বছরের সরকারি মেডিক্যাল কলেজ বা ডেন্টাল কলেজ/ইউনিট এ ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের ক্ষেত্রে মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৮ নম্বর বাদ দিয়ে মেধা তালিকা তৈরি করা হবে।

উপজাতীয় প্রার্থীদের ক্ষেত্রে এসএসসি/সমমান এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় মোট জিপিএ কমপক্ষে ৮ পয়েন্ট হতে হবে। তবে এককভাবে কোনো পরীক্ষায় জিপিএ ৩.৫০ এর কম হলে আবেদনের যোগ্য বলে বিবেচিত হবে না। সবার জন্যে এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় জীববিজ্ঞানে ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ৪.০ না থাকলে আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে।
১০০ নম্বরের ১০০টি এমসিকিউ প্রশ্নের ১ ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

লিখিত পরীক্ষায় বিষয় ভিত্তিক নম্বর বিন্যাস: জীববিজ্ঞান ৩০, রসায়নবিদ্যা ২৫, পদার্থবিদ্যা ২০, ইংরেজি ১৫, সাধারণ জ্ঞান (বাংলাদেশের ইতিহাস ও মুক্তিযুদ্ধ) ১০। লিখিত পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তর প্রদানের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে। লিখিত পরীক্ষায় ৪০ নম্বরের কম নম্বর প্রাপ্তরা অকৃতকার্য বলে গণ্য হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ