শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন

প্রয়োজনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিধি পরিবর্তন: আইনমন্ত্রী

প্রতিনিধির / ৭৬ বার
আপডেট : রবিবার, ২ এপ্রিল, ২০২৩
প্রয়োজনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিধি পরিবর্তন: আইনমন্ত্রী
প্রয়োজনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিধি পরিবর্তন: আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে হয়রানির অভিযোগ উঠছে। প্রয়োজন হলে আইনের বিধি সংযুক্ত বা পরিবর্তনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। তবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োজনীয়তা আছে।

রোববার (২ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা চেম্বার অফ কমার্সের সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।মন্ত্রী বলেন, দেশে-বিদেশে বা জাতিসংঘে এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কিছু অপব্যবহার হয়েছিল, সেটা আমরা স্বীকার করে এ বিষয়ে কী পরিবর্তন আনা যায়, সেটি নিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আলোচনা এখনো চলমান আছে। সেখান থেকে একটা টেকনিক্যাল নোট এসেছে, আমরা সেটি নিয়ে আলোচনা-পর্যালোচনা করছি।

আনিসুল হক আরও বলেন, সাংবাদিকদের যাতে অহেতুক হয়রানি করা না হয়, সে বিষয়ে একটা পদ্ধতি গ্রহণ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সুধীজনদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। এ বিষয়ে ৩০ মার্চ আবারও বসার কথা ছিল, তবে তা স্থগিত করা হয়। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে পুনরায় বসা হবে। সুধীজনরা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ডাটা প্রটেকশন আইন এবং এনজিও ভলেন্টারি নিয়েও একটা আইনের কথা বলেছেন। এসব নিয়েও আলোচনা হবে।

ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট বিশ্বের সব দেশে আছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এই অ্যাক্ট বিশ্বের সব দেশে আছে কিন্তু সেখানে হয়তো সরাসরি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বলা নেই। ডিজিটাল অপরাধ কমাতে এ আইন করেছে সব দেশ।একটা শিশুর হাতে ১০ টাকা দিয়ে একটা ফটোকার্ড তৈরি করে দেশের মর্যাদা হেয়-প্রতিপন্ন করা যায় কিনা- সেই প্রশ্নও তোলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, দেশের কোনো গণমাধ্যম বা সাংবাদিকের বিরুদ্ধ সরকার মামলা করেনি। মামলা হয়েছে অন্যায়ের বিরুদ্ধে, অপরাধের বিরুদ্ধে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ