বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪, ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন

পিএসজির জার্সিতে শেষবার খেলতে নামছেন মেসি

প্রতিনিধির / ৭৪ বার
আপডেট : শনিবার, ৩ জুন, ২০২৩
পিএসজির জার্সিতে শেষবার খেলতে নামছেন মেসি
পিএসজির জার্সিতে শেষবার খেলতে নামছেন মেসি

পিএসজিতে লিওনেল মেসির বিদায়ী ম্যাচ নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। পিএসজির কোচ ক্রিস্টোফার গ্যালতিয়ের গত বৃহস্পতিবার সরাসরি সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছেন, মেসি পিএসজি ছেড়ে যাচ্ছেন। শনিবার ক্লেরমন্তের বিপক্ষে মৌসুমের শেষ ম্যাচটিই হবে পিএসজির হয়ে মেসির শেষ ম্যাচ।

কিন্তু গ্যালতিয়েরের ঐ ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা পরই পিএসজির এক কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে নাকি জানিয়েছেন অন্য কথা। তিনি নাকি বলেছেন, কোচ গ্যালতিয়ের কথাটা ঠিকভাবে বলতে পারেননি। দুই পক্ষ নাকি এখনো চুক্তি নবায়নের চেষ্টা করে যাচ্ছে।আর্জেন্টিনার জনপ্রিয় পত্রিকা ‘টিওয়াইসি স্পোর্টস’ও রয়টার্সের সঙ্গে সুর মিলিয়ে দাবি করেছে, হাল ছেড়ে না দিয়ে পিএসজি এখনো চুক্তি নবায়নের চেষ্টা করে যাচ্ছে। মেসির বর্তমান চুক্তির শর্তে আরো এক বছর মেয়াদ বাড়ানোর শর্ত জুড়ে দেওয়া ছিল। পিএসজি নাকি সেই আশাতেই বসে আছে।

তবে রয়টার্স ও ‘টিওয়াইসি স্পোর্টসের’ দুটো দাবিকেই তেমন জোরালো মনে হচ্ছে না। কারণ, সরাসরি ক্লাব পিএসজির পক্ষ কোনো বক্তব্য আসেনি। কোচ গ্যালতিয়েরও ‘ভুল’ করার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে কোনো বিবৃতি দেননি! রীতিমতো সংবাদ সম্মেলনে মেসির মতো একজন খেলোয়াড়ের বিদায়ের ঘোষণা দেওয়াটা তো আর ছোট ঘটনা নয়। যদি ঘোষণাটা সত্যিই ভুলবশতঃ হতো, তাহলে, নিশ্চিতভাবেই ক্লাব পিএসজির পক্ষ বিবৃতি আসত।

কোচ গ্যালতিয়েরও হয়তো নিজের ভুল স্বীকার করে গণমাধ্যমের কাছে, ক্ষমা চাইতেন! কিন্তু সেরকম কিছুই ঘটেনি। তারপরও খবর যেহেতু একটা রটেছে, তখন ধোঁয়াশা তৈরি হওয়াটাই স্বাভাবিকভাবেই। তবে গ্যালতিয়েরের ঘোষণা মতো আজই মেসির শেষ ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। যদি সত্যিই মেসির শেষ ম্যাচ হয়, তাহলে পার্ক দ্য প্রিন্সেসের গ্যালারির পরিবেশটা আজ কেমন থাকবে? গ্যালারিতে মেসি-বিরোধী স্লোগান উঠবে, ভেসে আসবে দুয়ো? নাকি অতীতের সব রাগ-ক্ষোভ ভুলে বিদায়বেলায় মেসিকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়ে মানবিকতার পরিচয় দেবেন পিএসজির সমর্থকরা? ক্যারিয়ারজুড়ে যে তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি কখনোই হতে হয়নি, পিএসজিতে এসে সেই অভিজ্ঞতাই বরণ করতে হয়েছে লিওনেল মেসিকে। দল এবং নিজের বাজে দিনে নিজ দলের সমর্থকদের কাছ থেকেই দুয়ো শুনতে হয়েছে। তাও এক-দুই বার নয়, দুই বছরে পার্ক দ্য প্রিন্সেসে এই অচেনা তিক্ততার মুখোমুখি মেসিকে হতে হয়েছে অনেকবার।

গত মাসে ক্লাবের অনুমতি ছাড়া সৌদি আরব সফর করার অপরাধে তো মেসির বাড়ির সামনে বিক্ষোভও করেছেন পিএসজির উগ্রবাদী সমর্থকরা, দিয়েছে ‘মেসি চলে যাও’ স্লোগান। আজও কি পার্ক দ্য প্রিন্সেসে ‘মেসি চলে যাও’ স্লোগান উঠবে? গ্যালতিয়েরের অবশ্য সমর্থকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে রেখেছেন মেসির বিদায়টা ভালোবাসায় রাঙিয়ে দেওয়ার, ‘আশা করি শেষ ম্যাচটিতে সে (মেসি) উষ্ণ অভ্যর্থনাই পাবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ