শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৬ অপরাহ্ন

দেশে সরাসরি এফডিআই বেড়েছে

প্রতিনিধির / ২৪ বার
আপডেট : রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২২
দেশে সরাসরি এফডিআই বেড়েছে
দেশে সরাসরি এফডিআই বেড়েছে

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত ২০২১-২২ অর্থবছরে সব মিলিয়ে ৪৭০ কোটি ৮০ লাখ (৪.৭১ বিলিয়ন) ডলারের এফডিআই এসেছিল দেশে, যা ছিল আগের বছরের (২০২০-২১) চেয়ে ৩৯ শতাংশ বেশি। নিট এফডিআই বেড়েছিল আরো বেশি, ৬১ শতাংশ। গত অর্থবছরে নিট এফডিআইয়ের পরিমাণ ছিল ২১৮ কোটি ডলার।

এর আগে ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৩২৩ কোটি ৩০ লাখ ডলারের বিদেশি বিনিয়োগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। নিট বিনিয়োগের অঙ্ক ছিল ১২৭ কোটি ১০ লাখ ডলার। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে প্রায় ৫০০ কোটি ডলার বিদেশি বিনিয়োগ এসেছিল দেশে। এর মধ্যে নিট এফডিআইয়ের পরিমাণ ছিল ২৬৩ কোটি ডলার।

দেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) বেড়েছে। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) ১৫৪ কোটি ৫০ লাখ ডলারের এফডিআই পেয়েছে বাংলাদেশ। ২০২১-২২ অর্থবছরে (জুলাই-অক্টোবর) ১১২ কোটি ৯০ লাখ ডলারের এফডিআই পেয়েছিল। অর্থাৎ আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় এফডিআই বেড়েছে ৩৬.৮৫ শতাংশ।বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বিভিন্ন খাতে মোট যে এফডিআই আসে, তা থেকে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান মুনাফার অর্থ দেশে নিয়ে যাওয়ার পর অবশিষ্ট অঙ্ককে নিট এফডিআই বলা হয়। আলোচিত সময়ে নিট বিদেশি বিনিয়োগও আগের বছরের চেয়ে ৪১.৯৬ শতাংশ বেড়ে ৬০ কোটি ৯০ লাখ ডলারে দাঁড়িয়েছে। গত বছর একই সময়ে নিট বিদেশি বিনিয়োগ ছিল ৪২ কোটি ৯০ লাখ ডলার।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, করোনার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর বিনিয়োগ আসার কিছুটা আবহ তৈরি হয়েছিল। তবে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে মূল্যস্ফীতি আরো এক দফা বেড়েছে। একই সঙ্গে যুদ্ধের কারণে বেড়েছে ডলারের বিনিময় হার। এর ফলে দেশে ডলার সংকটের মধ্যে অর্থনীতিতে ব্যাপক চাপ বাড়ছে। এসব সংকটের মধ্যে কিছুটা আশা দেখাচ্ছে এফডিআই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ